হোম সম্পাদকীয় সেই ক্রসফায়ার চত্বর!! বিচার চাই..

সেই ক্রসফায়ার চত্বর!! বিচার চাই..

176
0

ফরিদূল মোস্তফা খান : এই সেই কবিতা চত্বর। যেখানে ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ঢাকা থেকে তুলে এনে পরের দিন মধ্যরাত থেকে ফজর অবধি কক্সবাজারের সাবেক এস পি (বর্তমানে রাজশাহী) এ বি এম মাসুদ হোসেন, সদরের সাবেক ওসি (বর্তমানে বরিশাল রেন্জ) ফরিদ উদ্দিন খন্দকার, টেকনাফের ওসি প্রদীপ কুমার দাশ ও তাদের লালিত পালিত মাদক ব্যবসায়ীরা আমাকে গুলি করে হত্যা করে, হয় বন্দুক যুদ্ধ, না হয় অজ্ঞাতনামা লাশ উদ্ধারের তাদের সেই পুরনো নাটক সাজাবার চেয়েছিল।
শুধু তাদের মাদক ব্যবসা,নিরীহ মানুষ খুন,মা- বোনদের সম্ভ্রমহানীর সংবাদ প্রকাশের অপরাধে এই সময় তাদের গোপনে প্রকাশ্যে সহযোগিতা করেছিল আমারি প্রিয় কিছু বর্নচোরা নিমকহারাম।
এখনও ককসবাজার ডিসি অফিস, এসপি অফিস ও থানাসহ বিভিন্ন অফিস আদালতে ঘুরঘুর করে দালালী এবং তাবেদারিতে লিপ্ত এসব নরপশু ও প্রদীপরা এর আগেই টেকনাফ ও ককসবাজার থানায় আমাকে কি নির্যাতন করেছে তা কারও অজানা নই।
তাদের ৬টি মিথ্যা মামলায় টানা ১১ মাস ৫ দিন কারাভোগের পর এই প্রথম আজ কবিতা চত্বরে এলাম।

আহা! কত মায়ের সন্তানের বুকের তাজা রক্ত আর গগনবিদারী আর্তনাদ বাচবার আকুতি এই কবিতা চত্বর তারা রঞ্জিত করেছে,?
এখানকার সাগরের পানি, বালিয়াড়ি, ঝাউগাছ কথা বলতে পারলে নিশ্চয় আমাকে সাক্ষী দিত।
এই অবস্থায় সরকারের সংশ্লিষ্টদের কাছে আমাদের আবেদন একটাই, পর্যটনের সার্থে হলেও কবিতা চত্বর যেন আর মজলুমের রক্তে রঞ্জিত নাহয়।
দয়া করে এইরকম আরও যারা প্রদীপ আছে, খুন গুম,হামলা মামলা,জুলুম নির্যাতন, নারীর স্বতীত্বহরণ করতে যাদের এতটুকু মায়া হয়না,
তাদের দমন করতে ককসবাজারের সকল গোয়েন্দা সংস্থা, জেলা প্রশাসক, নবাগত পুলিশ সুপার সহ সংশ্লিষ্টদের অনুরোধ করছি।
কারণ যার সন্তান অকালে গেছে, কেবল তার পরিবারেই জানে স্বজন হারানোর বেদনা, দীর্ঘশ্বাস, অভিশাপ, যন্ত্রণা কি?
আর কিছুটা বুঝবেন আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশের উন্নয়নের রুপকার বিশ্ব মানবতার মা জননেত্রী শেখ হাসিনা।

উল্লেখ্য,ককসবাজার শহরের মহিলা কামিল মাদরাসার সামনে একদিকে সাগর অপর দিকে পাহাড় আর সবুজ ঝাউবীথি ঘেরা নৈসর্গিক সৌন্দর্যের লীলাভূমি এই কবিতা চত্বর।
প্রদীপরা যা অঘোষিত ক্রসফায়ার চত্বর ও টর্চার সেলে পরিনত করেছিল।

সম্ভবত এই কারণেই আতংকে পর্যটকদের এক সময়ের অতি আকর্ষণীয় এই কবিতাচত্বরে এখন আর আগের মত পর্যটক নেই।
তাই কবিতা চত্বরে পর্যটক ফেরাতে সরকারের জরুরী হস্তক্ষেপ চাই।অতীতে এখানে যা হয়েছে, কারা করেছে, কেন করেছে তদন্ত পূর্বক বিচার হোক।

রিপ্লাই করুণ

Please enter your comment!
Please enter your name here